Wellcome to National Portal
Text size A A A
Color C C C C

সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১st ফেব্রুয়ারি ২০২৪

ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও

 

জনাব শফিউল আজিম, ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও, বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর জীবন বৃত্তান্ত

 

  		Managing Director & CEO
  

গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের অতিরিক্ত সচিব জনাব শফিউল আজিম গত ১২ ডিসেম্বর ২০২২ খ্রি. তারিখে বাংলাদেশের জাতীয় পাতাকাবাহী বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স এর ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও হিসেবে যোগদান করেন। বিমানে যোগদানের পূর্বে তিনি মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব (আইন ও বিধি অনুবিভাগ) হিসেবে দায়িত্বরত ছিলেন।

 

১৯৬৭ সালের ১৮ নভেম্বর কক্সবাজার শহরের এক ঐতিহ্যবাহী বুনিয়াদি পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন জনাব শফিউল আজিম। তিনি ১৯৮৫ সালে কক্সবাজার সরকারি উচ্চ বিদ্যালয় হতে প্রথম বিভাগে এসএসসি, ১৯৮৭ সালে চট্টগ্রাম সরকারি কলেজ হতে কৃতিত্বের সাথে এইচএসসি এবং ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে আইন বিষয়ে ১৯৯১ সালে স্নাতক ও ১৯৯২ সালে স্নাতকোত্তর সম্পন্ন করেন। পরবর্তীতে তিনি নর্দান ইউনিভার্সিটি থেকে গভর্নমেন্ট স্টাডিজ বিষয়ে মাস্টার্স (এমএজিএস) ডিগ্রি অর্জন করেন। এছাড়াও তিনি United Nations Office on Drugs and Crime (UNODC), Vienna এবং Commonwealth of Nations, London এর অধীনে বিভিন্ন পেশাগত কোর্স সম্পন্ন করেছেন। পাশাপাশি Bangladesh Airlines Training Center (BATC) থেকে ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও হিসেবে Safety Management System, Human Factors, EASA and CAAB Part-147/66, Part-M, Part-145, Aviation Regulatory Framework সহ প্রয়োজনীয় কোর্স সম্পন্ন করেছেন।

 

জনাব শফিউল আজিম ১৯৯৫ সালে ১৫তম বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে উত্তীর্ণ হয়ে সরকারি চাকুরিতে যোগদান করেন। চাকুরি জীবনের শুরুতে সিলেট বিভাগে সহকারী কমিশনার ও প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে নিয়োগ পান। পরবর্তীতে তিনি হবিগঞ্জ জেলা প্রশাসনে এবং দ্রুত বিচার আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন। অত্যন্ত মেধাবী, সৎ ও চৌকষ কর্মকর্তা জনাব শফিউল আজিম কুমিল্লা জেলা প্রশাসনে সহকারী কমিশনার ও প্রথম শ্রেণীর ম্যাজিস্ট্রেট হিসেবে সততা, নিষ্ঠা ও পেশাদারিত্বের সাথে ৪ বছর দায়িত্ব পালন করেন। তিনি তৎকালীন প্রতিমন্ত্রী দীপংকর তালুকদারের একান্ত সচিব (সিনিয়র সহকারী সচিব) এবং সাবেক আইন ও সংসদ বিষয়ক মন্ত্রী ব্যারিস্টার শফিক আহমেদ এর একান্ত সচিব (উপসচিব) হিসেবে দীর্ঘ ৫ বছর দক্ষতা ও সফলতার সাথে দায়িত্ব পালন করেন।

 

তিনি সাভারে লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্র (BPATC)-এর উপ-পরিচালক ছিলেন। এরপর তিনি কাতারের দোহায় বাংলাদেশ দূতাবাসে ও দারুস সালাম, ব্রুনাই এর বাংলাদেশ দূতাবাসে কাউন্সিলর হিসেবে দায়িত্ব পালন কালে উভয় দেশের সরকার ও প্রবাসীদের কাছে প্রশংসিত হন। জনাব শফিউল আজিম উপসচিব হিসেবে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়েও দায়িত্ব পালন করেন।

 

২০১৮ সালের ৮ অক্টোবর থেকে জনাব শফিউল আজিম মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের যুগ্মসচিব (বিধি, সেবা ও আইন অধিশাখা) হিসেবে দায়িত্ব পালন করেছেন। এসময় তার স্বাক্ষরে “জয় বাংলা” স্লোগান সরকারি গ্যাজেটে প্রকাশিত হয়। তিনি একই বিভাগে অতিরিক্ত সচিব (আইন ও বিধি অনুবিভাগ) পদে পদোন্নতি লাভ করেন।

 

এছাড়াও তিনি রাষ্ট্রের বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ পদে সুনামের সাথে দায়িত্ব পালন করেছেন। একজন গতিশীল ও মেধাবী কর্মকর্তা হিসেবে জনাব শফিউল আজিমের সুনাম রয়েছে জনপ্রশাসনের সর্বত্র। তিনি বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারের ১৫তম ব্যাচের সভাপতি এবং বাংলাদেশ সিভিল সার্ভিস প্রশাসন অ্যাসোসিয়েশন এর নির্বাহী কমিটির সদস্য।  

 

জনাব শফিউল আজিম ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় হতে আইন বিষয়ে অনার্স ও মাস্টার্স শেষ করা জনাব আয়েশা আলীর সাথে ১৯৯৭ সালে বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হন। জনাব আয়েশা আলী বাংলাদেশ সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী হিসেবে কর্মরত রয়েছেন। তাদের একমাত্র কন্যা নাহরীন তাজরী যুক্তরাজ্যের ইউনিভার্সিটি অব দ্য ওয়েস্ট অব ইংল্যান্ড (UWE) থেকে কৃতিত্বের সাথে আইনে উচ্চ শিক্ষা সম্পন্ন করেছেন।

 

জনাব শফিউল আজিম কর্মজীবনে সততা, নিষ্ঠা ও দায়িত্বশীলতার সাথে তার উপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করে যাচ্ছেন। প্রশিক্ষণ ও পেশাগত দায়িত্ব পালনের নিমিত্তে তিনি বিভিন্ন সময়ে যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র, জাপান, ইতালি, চীন, ভারত, ফ্রান্স, শ্রীলঙ্কা, সিঙ্গাপুর, ইন্দোনেশিয়া, মালয়েশিয়া, কাতার, ব্রুনাই, সৌদি আরব, অস্ট্রিয়া, সুইজারল্যান্ড ইত্যাদি সহ প্রায় চল্লিশটিরও অধিক দেশ ভ্রমণ করেছেন।