মেনু নির্বাচন করুন
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৩rd নভেম্বর ২০২১

চেয়ারম্যান

জনাব সাজ্জাদুল হাসান-এর সংক্ষিপ্ত জীবনী


সাজ্জাদুল হাসান
সাবেক সিনিয়র সচিব, প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়

 

জনাব সাজ্জাদুল হাসান ১১ জানুয়ারী ১৯৬১ সালে নেত্রকোনা জেলার মোহনগঞ্জের এক সম্ভ্রান্ত মুসলিম পরিবারে জন্মগ্রহণ করেন। তাঁর  পিতা মরহুম ডা. আখলাকুল হোসাইন আহমেদ মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক ছিলেন। তিনি গণপরিষদ সদস্য হিসেবে স্বাধীনতার পর বাংলাদেশ সংবিধান রচনায় সক্রিয় অংশগ্রহণ করেন এবং সংবিধান রচনার পর তাতে স্বাক্ষর প্রদান করেন। মাতার নাম বেগম হোসনে আরা হোসাইন।

 

জনাব সাজ্জাদুল হাসান মোহনগঞ্জ পাইলট উচ্চ বিদ্যালয় থেকে ১৯৭৬ সালে এসএসসি ও ঢাকা কলেজ থেকে ১৯৭৮ সালে এইচএসসি পাস করে বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, ময়মনসিংহ থেকে ১৯৮৪ সালে কৃষি অর্থনীতিতে সম্মানসহ ব্যাচেলর অব সায়েন্স এবং প্রকিউরম্যান ইকোনমিক্স ও ফার্ম ম্যানেজমেন্ট বিষয়ে মাস্টার অব সায়েন্স ডিগ্রি অর্জন করেন। ২০০২ সালে অস্ট্রেলিয়ার University of Western Sydney (UWS) থেকে কৃষিতে দ্বিতীয় মাস্টার ডিগ্রি সম্পন্ন করেন।

 

তিনি ১৯৮৮ সালে বিসিএস (প্রশাসন) ক্যাডারে যোগদান করেন। সিলেটের বিভাগীয় কমিশনার, কক্সবাজার ও সিলেটের জেলা প্রশাসক ছাড়াও কৃষি মন্ত্রণালয়,সড়ক পরিবহণ ও সেতু বিভাগ , জনপ্রশাসন মন্ত্রনালয়ে বিভিন্ন পদে অত্যন্ত নিষ্ঠা ও সততার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেন। মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে রয়েছে তাঁর দীর্ঘদিনের কাজের অভিজ্ঞতা। ২০১৫-১৭ সময়ে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর একান্ত সচিব-১ হিসেবে প্রায় তিন বছর এবং পরবর্তী সময়ে ২০১৮-১৯ সময়ে প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের সচিব ও সিনিয়র সচিব হিসেবে  দুবছর কাজ করেছেন। দীর্ঘ ৩২ বছর সরকারি চাকরী শেষে ১০ জানুয়ারী ২০১৯ সালে অবসর গ্রহণ করেন। তিনি নিজ এলাকার শিক্ষা,সংস্কৃতি, অর্থনৈতিক সমৃদ্ধি ও এলাকার জীবনমান উন্নয়নে একজন নিবেদিতপ্রাণ। বর্তমানে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্স-এর পরিচালনা পর্ষদের চেয়ারম্যান হিসেবে দায়িত্ব পালন করছেন। তিনি বাংলাদেশ কৃষি অর্থনতিবিদ সমিতির সভাপতি হিসেবে দ্বিতীয়বারের মতো দায়িত্ব পালন করছেন। বিভিন্ন সময়ে তিনি শেখ হাসিনা বিশ্ববিদ্যালয়, বাংলাদেশ কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কৃষি বিশ্ববিদ্যালয়ে সিন্ডিকেট সদস্য হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

 

চাকরিকালীন তিনি যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য,অস্ট্রেলিয়া, চীন, জাপান, ভারত, সৌদি আরব, শ্রীলংকা, ভুটান, ইতালি, ফ্রান্স, জার্মানি, সুইজারল্যান্ড,  পোল্যান্ড, তুরস্ক, ভিয়েতনাম,আজারবাইজান, চেকোস্লাভাকিয়া, মঙ্গোলিয়া, ব্রুনাই, সিঙ্গাপুরসহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ সফর করেন।

 

তাঁর স্ত্রী বেগম লায়লা আরজুমান ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় থেকে ভূগোলে এমএসসি ডিগ্রি অর্জন করেন। জ্যেষ্ঠ পুত্র আহমেদ সাদাব হাসান লেফটেন্যান্ট হিসেবে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীতে কর্মরত এবং কনিষ্ঠ পুত্র আহমেদ সাবাব হাসান রেসিডেন্সিয়াল মডেল স্কুল অ্যান্ড কলেজে দশম শ্রেণিতে অধ্যয়নরত।



Share with :

Facebook Facebook